Home দেশ করোনার টিকার দাম ধার্য করায়, কেন্দ্র কে চিঠি মমতার

করোনার টিকার দাম ধার্য করায়, কেন্দ্র কে চিঠি মমতার

করোনা র বাড়বাড়ন্ত তে গোটা রাজ্য সংশয় প্রকাশ করেছে । যেহেতু করোনা র এই দ্বিতীয় রূপে অল্পবয়স্করা বেশি করে আক্রান্ত হচ্ছে তাই কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন সিদ্ধান্ত ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে সকলে ভ্যাকসিন নেওয়ার তালিকার অন্তর্ভুক্ত হবে । সম্ভবত মে মাস থেকে এই ব্যাবস্থা কার্যকরী হবে । করোনা র ভ্যাকসিন তৈরির সবচেয়ে বড় ইনস্টিটিউটটি হলো সিরাম ইনস্টিটিউট । ইতিমধ্যে কেন্দ্র থেকে সেখানে অধিক থেকে অধিক ভ্যাকসিন তৈরি করতে বলা হয়েছে । কাজ শুরুর প্রাথমিক অনুদান হিসেবে কেন্দ্র থেকে ৩ হাজার কোটি টাকা দেওয়া হয়েছে । এছাড়াও করোনা সংক্রান্ত প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে খোলাবাজারে ভ্যাকসিন বিক্রির কথা বলা হয়েছিল ।

 

 

সেই অনুযায়ী ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলি সরাসরি খোলা বাজারে এবং রাজ্য সরকারের কাছে মোট ভ্যাকসিনের ৫০ শতাংশ বিক্রি করতে পারবেন । এবং বাকি ৫০ শতাংশ পৌঁছতে হবে কেন্দ্রে । মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় এর তীব্র বিরোধিতা করেছেন । তার মতে খোলা বাজারে ভ্যাকসিন বিক্রি শুরু হলে তাতে সাধারণ মানুষের কোনো সুবিধাই হবে না । বরং বেশিরভাগ ভ্যাকসিন কালোবাজারের অন্তর্ভুক্ত হবে । এছাড়াও মুখ্যমন্ত্রী সংবাদ মাধ্যম থেকে জানতে পেরেছেন যে ভ্যাকসিন তৈরির ইনস্ট থেকে ভ্যাকসিনের দুই রকম দাম নির্ধারণ করা হয়েছে । অর্থাৎ সেখান থেকে কেন্দ্রে ১৫০ টাকায় ভ্যাকসিন দেওয়া হবে এবং অন্যান্য রাজ্যগুলিতে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে ৪০০ টাকায় ।

 

 

 

মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন দেশের এই কঠিন পরিস্থিতিতে ব্যাবসার কথা ভাবলে চলবে না । আমাদের প্রথম কাজ দেশের নিরীহ প্রানগুলোকে রক্ষা করা । এইসব বিষয় নিয়ে জানার সাথে সাথে মুখ্যমন্ত্রী দিল্লিতে চিঠি লিখবেন জানিয়েছেন । এছাড়াও তিনি বলেছিলেন যে রাজ্য সরকার কেন্দ্র থেকে ভ্যাকসিন কিনে বিনামূল্যে তা সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দেবে । যার জন্য সাধারণ মানুষ খানিকটা সোস্থি পেয়েছিল ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

শীর্ষ সংবাদ

- Advertisement -

অন্য রকম