Home আন্তর্জাতিক চীনের নতুন চাপ,খেলনার বাজারে চীনকে তোপ ভারতের

চীনের নতুন চাপ,খেলনার বাজারে চীনকে তোপ ভারতের

দৈনিক ডেস্ক: খেলনার বাজারে চীন যে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করে আছে এবার সেই রাজত্বে সমাপ্তি টেনে আত্মনির্ভর হতে চায় ভারত। গ্রেটার নয়ডায় তৈরি হচ্ছে টয় সিটি। এবার থেকে যেখানে প্রস্তুত হবে নানা ধরণের খেলনা, এতদিন ধরে যা চীন থেকে আমদানি করে থাকত ভারত।

জানা গিয়েছে, এই টয়সিটি সৃষ্টি করবে যমুনা এক্সপ্রেসওয়ে ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডেভেলপমেন্ট অথরিটি। এই টয় সিটি সৃষ্টি হলে তৈরি হবে প্রচুর কর্মসংস্থান, জানাচ্ছে উত্তরপ্রদেশ সরকার। এর পাশাপাশি, চীন থেকে বন্ধ করে দেয়া হবে খেলনার আমদানি। সঙ্গে আর্থিক ক্ষতির মুখোমুখি হবে বেজিং।

ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকার টয় সিটি সৃষ্টি করতে গ্রেটার নয়ডার সেক্টর ৩৩য়ে ১০০ একর জায়গা বেছেছে। এখানে প্রায় হাজারেরও বেশি মানুষ কাজ পাবেন বলে আশা করা যায়। যমুনা অথরিটির সিইও অরুণবীর সিং জানান, “দেশের প্রতিটি খেলনা প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলিকে আহ্বান জানানো হয়েছে। তাদের আগমনে ভারত খেলনা প্রস্তুতিতে সমৃদ্ধি লাভ করবে।”

নানা জায়গা থেকে বিভিন্ন প্রস্তাব ইতিমধ্যেই আসতে শুরু করেছে ভারতের কাছে। খেলনার দামও বেড়েছে, আমদানি শুল্ক অত্যধিক হারে বেড়ে যাওয়ায় । এমতাবস্তায় টয় অ্যাসোসিয়েশন জানায়, খেলনার দাম কমাতে হলে ভারতে উৎপাদিত বিভিন্ন জিনিস দিয়ে খেলনা তৈরি করতে হবে, তবে দাম কমে আসবে অনেকটাই। বিদেশি পণ্যের ওপর নির্ভর করা বাধ্যতামূলক নয়।সূত্রে খবর, ৭০টি অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করা হবে এই টয় সিটিতে।প্রয়োজন ১লক্ষ ২০ হাজার স্কোয়ার মিটার এলাকা। উত্তরপ্রদেশ সরকার এখন এই ফর্মুলায় মগ্ন হচ্ছে, যাতে করে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে খেলনা প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলির আগমন ঘটে।

যমুনা অথরিটি জানায় এই ব্যবস্থার শুরুতে এখানে ৫০ হাজার মানুষ কাজ পেতে পারেন। তবে ভবিষ্যত পরিকল্পনা রয়েছে প্রায় ৪ লক্ষ মানুষকে কাজ দেওয়ার। এর মধ্যে পরোক্ষভাবে মানুষ যেন কাজ করতে পারেন সেদিকেও ধ্যান দিতে হবে। এই টয় সিটি গড়ে উঠলে এটিই হবে ভারতের প্রথম টয় ক্লাস্টার। যা খেলনার বাজারে চিনের একচ্ছত্র আধিপত্যকে পিছনে ফেলবে। জানা গিয়েছে, এই ১০০ একর জমিতে প্রায় ৮০টি দোকান ও কারখানা তৈরি হবে।এবং ভবিষ্যতে আরো বাড়ানো হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

শীর্ষ সংবাদ

- Advertisement -

অন্য রকম