Home রাজ্য করোনার প্রকপে রাজ্যে ফের লকডাউনের আশঙ্কা!

করোনার প্রকপে রাজ্যে ফের লকডাউনের আশঙ্কা!

Dainik Khabor :- চিনের উহান প্রদেশ সৃষ্টি হওয়া করোনা ভাইরাস দিন দিন গোটা পৃথিবী তে ছড়িয়ে পরে। পৃথিবীর প্রায় ২১১ টির বেশি দেশে এই মারণ ভাইরাস করোনা থাবা বসায়। যার জন্য গোটা বিশ্ব থমকে পরে। করোনা কে আটকানোর জন্য শুরু করা হয় লকডাউন। কেননা এই ভাইরাস থেকে বাঁচার একটি উপায় সেটি হলো লকডাউন। কারণ এই মারণ ভাইরাস এমন একটি ভাইরাস যা একজনের শরীর থেকে অন্য জনের শরীরে ছড়িয়ে পরে।

তাই এই ভাইরাস কে আটকানোর একটাই রাস্তা ছিলো সেটা হল পূর্ণাঙ্গ লকডাউন। যদিও লকডাউন করে এই ভাইরাস কে আটকানো যায়। এই লকডাউনের ফলে নিউজিল্যান্ড এর মতন দেশ করোনার থেকে নিস্তার পেয়ে গেছে। তবে আমেরিকা, ব্রাজিল, ফ্রান্স, ইতালির মতন দেশ গুলিতে মারণ ভাইরাস করোনা ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করে বসে। ভারতবর্ষেও এই মারণ ভাইরাস করোনা ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করে বসে। দিনের পরে দিন বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। বিশ্বের দেশ গুলির মধ্যে ভারত এখন তৃতীয় তম স্থানে পৌঁছে গেছে। ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭ লাখের ওপরে।

এই দিকে পশ্চিমবঙ্গতেও দিনের পরে দিন বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। ভিন্ন দেশ, রাজ্য থেকে অনেক পরিযায়ী শ্রমিক কাজ থেকে বাড়িতে ফেরেন যার জন্য রাজ্যেও ক্রমশ বেড়েই চলতে থাকে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। রাজ্যের পরিস্থিতি কে সামাল দেওয়ার জন্য রাজ্য পুলিশ থেকে শুরু করে বিভিন্ন স্বেচ্ছা সেবী সংঘঠন গুলি পথে নামে। পশ্চিমবঙ্গ তেও পূর্ণাঙ্গ লকডাউন পালন করা হয়। কিন্তু পরবর্তীকালে পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হওয়ার পরে আনলক -১ এর মাধ্যমে বিভিন্ন জন জীবন কে স্বাভাবিক করা হয়। ধীরে ধীরে রাজ্যে খুলতে থাকে দোকান, শপিং মল, ইত্যাদি যদিও সমস্ত কিছু নিয়ম মেনেই শুরু করা হয়।এর পরে আনলক -২ এর মাধ্যমে পরিস্থিতি আরো কিছুটা স্বাভাবিক করা হয়। গাড়ি চলতে থাকে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায়।

কিন্তু এই সব পরিস্তির মধ্যেই রাজ্যে ফের দিনের পরে দিন আবার বাড়তে থাকে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। আর জন্যই রাজ্যের কিছু কিছু জায়গায় লকডাউন করার ব্যবস্থা নেওয়া হয়। উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় আবার ১৪ দিনের জন্য লকডাউন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এই দিকে আলিপুরদুয়ার জেলার ফালাকাটায় করোনা আক্রান্তের হু হু করে বেড়ে যাওয়ার ফলে সেখানেও লকডাউন করা হয়। অন্য দিকে মালদহ জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দিনের পরে দিন বেড়ে যাওয়ার জন্য মালদা জেলাতেও লকডাউন করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। কেননা মালদহ জেলায় মহকুমার শাসক সহ অনেকেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে খবর পাওয়া যায়। এছাড়াও শিলিগুড়িতেও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। গত দুইদিনে শিলিগুড়িতে করোনার জন্য ৩ জন ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া যায়। এই দিকে আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর এও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা নতুন করে বাড়তে শুরু করেছে হু হু করে। তাই এই সকল পরিস্থিতি কে সামাল দেওয়ার জন্য রাজ্যে লকডাউন করা হবে কিনা সেটা নিয়ে চিন্তা ভাবনা চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

শীর্ষ সংবাদ

- Advertisement -

অন্য রকম