Home মালদা বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত নদীর পার্শ্ববর্তী এলাকা! পরিদর্শন করলেন পঞ্চায়েত প্রধান

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত নদীর পার্শ্ববর্তী এলাকা! পরিদর্শন করলেন পঞ্চায়েত প্রধান

মালদা, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ রতুয়া-১ ব্লকের অন্তর্গত ফুলহর ও গঙ্গা নদী বিপদসীমার উপর দিয়েই বইছে। প্রবল বর্ষণের জেরে জল বাড়ছে আর শুরু হয়েছে নদীবাঁধের ভাঙ্গন। আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন রতুয়ার মহানন্দাটোলা ও বিলাইমারি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার হাজারো পরিবার।সংবাদ মাধ্যমে এইখানকার খবর সমাচারের পর ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শনে যান রতুয়া ১ নং পঞ্চায়েত সমিতির এক প্রতিনিধি দল।নদী ভাঙ্গনের ফলে মহানন্দাটোলা ও বিলাইমারি গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রায় কয়েকশো বিঘা ফসলি জমি সহ আম বাগান তলিয়ে যায় নদীগর্ভে। আতঙ্কে দিন কাটাছে ওই দুই গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার মানুষেরা।

২৫শে জুলাই ফুলহর ও গঙ্গা নদীর ভাঙ্গন পরিদর্শনে যায় পঞ্চায়েত সমিতি প্রতিনিধি দলের সদস্যরা এবং পঞ্চায়েত সমিতির দলনেতা শুভম সরকার জানান ,”আজ আমরা রতুয়া-১ ব্লকের মহানন্দাটোলা ও বিলাইমারি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকা পরিদর্শনে এসেছি। এই দুই নদীর ভাঙ্গনের ফলে অনেক সংখ্যক পরিবার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। ফসলের জমি থেকে শুরু করে আমবাগান ভিটেমাটি তলিয়ে গেছে নদীর গর্ভে। তারা খোলা আকাশের নিচে দিন গুজরান করছেন। ইতিমধ্যে সবচেয়ে বেশি ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে গঙ্গা নদীতে। সেখানকার মানুষগুলো বেশি ক্ষতিগ্রস্ত। এভাবে ভাঙ্গন চলতে থাকলে মহানন্দাটোলা ও বিলাইমারি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকা একেবারে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে। ভাঙ্গন কিভাবে প্রতিরোধ করা যায় এই বিষয়ে রতুয়া-১ বিডিও এবং জেলা শাসককে স্মারকলিপি দেওয়া হবে আমাদের পঞ্চায়েত সমিতির পক্ষ থেকে।”

রতুয়ার ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শনে পঞ্চায়েত সমিতির প্রতিনিধি দল যায় ও গ্রামবাসীদের সমস্যার কথা শুনে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের আশাঃস দেয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

শীর্ষ সংবাদ

- Advertisement -

অন্য রকম