Home আন্তর্জাতিক সূর্যের তাপই পারে করোনাভাইরাস কে ধ্বংস করতে

সূর্যের তাপই পারে করোনাভাইরাস কে ধ্বংস করতে

Dainik Khabor :-২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে চীনে সৃষ্টি হওয়া করোনাভাইরাস গোটা দেশকে আক্রমণ করে। এর ফলে গোটা দেশ স্তব্ধ হয়ে পড়ে। আমেরিকার মত দেশ ও এই ভাইরাসকে ঠেকাতে  অনেক রকম চেষ্টা চালায়। যে সময় এই করোনাভাইরাস আস্তে আস্তে গোটা দেশে ছড়িয়ে পড়ে সেই সময় শোনা গিয়েছিল যে সূর্যের তাপে নাকি পারে এই ভাইরাস থেকে মুক্তি পেতে, কিন্তু পরবর্তীকালে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু, সেটি অস্বীকার করে বলেন কোন ভাবেই সম্ভব না যে সূর্যের তাপে থেকেই ভাইরাসের মুক্তি হবে। বর্তমানে প্রায় গোটা বিশ্বের ২০০ টি দেশের বেশি দেশে এই ভাইরাস হানা দেয় এবং অনেক দেশেই এক ভয়াবহ দুর্যোগ নেমে আসে। এই করোনাভাইরাস মারণ ভাইরাস নামে পরিচিত হয়েছে, হু এই করোনাকে মহামারি বলেছেন। গোটা পৃথিবী এখন চেষ্টা চালাচ্ছে কি করে এই ভাইরাস থেকে মুক্তি পাওয়া যায়, এখনো পর্যন্ত এই ভাইরাস থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য কোনরকম প্রতিষেধক,  টিকা বা ওষুধ আবিষ্কার করা সম্ভব হয়নি। আমেরিকা, ইতালি,  ভারত, নাইজেরিয়া, কানাডা, ইত্যাদি দেশগুলি এই ভাইরাস থেকে বাঁচার উপায় এখনো খুঁজে বের করছেন। পৃথিবীর কটা দেশ তাকিয়ে আছে কবে এই ভাইরাসের প্রতিষেধক বের হবে এবং গোটা পৃথিবী এই ভাইরাস থেকে মুক্তি হবে।

তবে তবে এই মাঝে যুক্তরাষ্ট্রের খ্যাতনামা বিজ্ঞানী লুইস সাগরি পান্তি, এবং ডেভিড লিটন তারা দাবি করেন যে একমাত্র সূর্যের আলোয় পারে এই ভাইরাসকে সবথেকে প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তুলতে। দুপুরে সূর্যের আলো এই ভাইরাসকে ৯০% ধ্বংস করতে পারে মাত্র ৩০ মিনিটেই। ২১থেকে ২৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় একরতে ভাইরাস অনেকটাই ধ্বংস হয়ে যায় বলে দাবি করেছেন এই বিজ্ঞানীরা। তারা এও বলেন যে যতদিন সূর্যের আলো থাকবে ততদিন এ ভাইরাসএ শক্তি কম থাকে। তারা বলেন যে শীতের সময়ে এই ভাইরাসের প্রকোপ আবার বাড়তে পারে।

তারা বলেন যে সূর্যের আলোয় স্টিলের  মধ্যে জমে থাকা ভাইরাস ও বেশিক্ষণ টিকে থাকতে পারে না। করতেতবে কি সত্যি এই ভাইরাস সূর্যের আলোয় অনেকটাই শক্তি হারিয়েছে, এমনটাই মনে করছে অনেক বিজ্ঞানীরা। কিন্তু বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা WHO  সেটি নাকচ করে দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

শীর্ষ সংবাদ

- Advertisement -

অন্য রকম