BSF কে আক্রমন করার ফল, অপর্ণা সেনের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে মামলা, জেনে নিন ভিডিও তে বিস্তারিত

BSF কে আক্রমন করার ফল, অপর্ণা সেনের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে মামলা, জেনে নিন ভিডিও তে বিস্তারিত

অপর্ণা সেন সোমবার প্রেস ক্লাবের একটি অনুষ্ঠান থেকে বাংলায় বিএসএফ-র ক্ষমতা বৃদ্ধির বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন। আর এবার অপর্ণা সেনের বিএসএফ বিরোধিতার জেরেই কলকাতা হাইকোর্টে (Calcutta High Court) ওনার বিরুদ্ধে দায়ের হল মামলা। কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের মামলার জেরে বিপাকে পড়তে পারেন অভিনেত্রী।

সোমবার প্রেস ক্লাব থেকে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে অপর্ণা সেন বলেছিলেন,

‘মিলিটারিদের ক্ষমতা অনেকটা বাড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে ছিটমহলের বাসিন্দাদের কথা ভাবলেই শিউরে উঠছি। এমনিতেই তাঁদের যা অবস্থা, তাতে করে এখন যদি বিএসএফের এলাকা আরও বাড়িয়ে দেওয়া হয়, তাহলে তাঁদের অবস্থা আরও দুর্বিষহ হয়ে উঠবে। সীমান্ত এলাকার মানুষেরা যাতে ব্যবসা-বাণিজ্য, চাষাবাদ করে খেতে পয়ারেন, সেটা রাজ্য সরকারকে দেখতে হবে’।

অভিনেত্রীর এই মন্তব্য হিংসার উস্কানি বলে দাবি করেছেন অনির্বাণবাবু। তিনি জানিয়েছেন, একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তি যদি এমন মন্তব্য করেন, তাহলে সাধারণ মানুষ সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনীর উপর থেকে আস্থা হারাবে। যারা দিনরাত সীমান্তে পাহারা গিয়ে আমাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করেন, তাঁদের বিরুদ্ধে এহেন মন্তব্য সহ্যনিয় নয়। অনির্বাণবাবু অভিনেত্রী অপর্ণা সেনের কাছে আগামী সাত দিনের মধ্যে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার দাবি করেছেন।

শোনা গিয়েছে, নিজের বক্তব্য ‘খুন’, ‘ধর্ষক’-এর মতো শব্দ ব্যবহার করেন অপর্ণা সেন। তাতেই আপত্তি  আইনজীবী পৃথ্বীজয় দাসের। তাঁর অভিযোগ, নিজের কথার মাধ্যমে কেন্দ্রীয় বাহিনীর অসম্মান করেছেন অপর্ণা সেন। তাই সাত দিনের মধ্যে অভিনেত্রী-পরিচালককে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইতে হবে বলে দাবি জানান তাঁর। অপর্ণা সেনের এই মন্তব্যের তীব্র প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। অভিনেত্রী-পরিচালককে ‘ভাতাজীবী’ বলেও কটাক্ষ করেন তিনি।