fbpx
Saturday, June 19, 2021
Homeউত্তরবঙ্গবাড়িতে বসে সরকারি মাইনে ভোগ করতে পারবোনা , মাইনের সেই টাকায় অ্যাম্বুলেন্স...

বাড়িতে বসে সরকারি মাইনে ভোগ করতে পারবোনা , মাইনের সেই টাকায় অ্যাম্বুলেন্স দান শিক্ষিকার!

 

করোনার জেড়ে স্কুল,থেকে কলেজ সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোই বন্ধ রয়েছে অনেকদিন যাবৎ।প্রায় ২বছর হতে চলেছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো বন্ধ হওয়ার,আর তাই বাড়িতে থেকে মানব সেবায় নিজেকে এগিয়ে সেই বেতনের টাকায় ‘কেয়া সেন’নামক এক শিক্ষিকা এবারে এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাকে অ্যাম্বুলেন্স দান করলেন। করোনা মহামারীতে রোগীদের পাশে দাঁড়াতে শিক্ষিকার এইরূপ পদক্ষেপ সকলকেই অনুপ্রাণিত করেছে।

 

 

জলপাইগুড়ি ২০নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা কেয়া সেন তিনি তার স্বামী এবং দুই ছেলেকে নিয়ে তার ছোট্ট সংসার।শিক্ষিকা কেয়া সেন তিনি রাজগঞ্জ ব্লকের মান্তাদারি বিএফপি স্কুলে শিক্ষকতা করেন।অনেকদিন যাবৎ বাড়িতেই বসে ছিলেন শিক্ষিকা,করোনা মহামারীর জন্যে বন্ধ রয়েছে স্কুল আর বাড়িতে বসে কি করে সাধারণ মানুষের জন্যে কিছু করা যায় সেই বিষয়ে ভেবে এবারে নিজ বেতনে অ্যাম্বুলেন্স দান করেন তিনি।

 

এই বিষয়ে শিক্ষিকা কেয়া সেন জানান, “অ্যাম্বুল্যান্স দানের পরিকল্পনা তাঁকে তাঁর বড় ছেলে স্পন্দন দিয়েছিলেন। কিন্তু সমস্যা হয়,অ্যাম্বুল্যান্সের দাম প্রায় ৭ লক্ষেরও বেশি টাকা আর একবারে এতো টাকা কিভাবে জোগাড় করবেন তাঁরা?এর পরেই সিদ্ধান্ত নিলেন মাসিক কিস্তিতে অ্যাম্বুল্যান্স কিনবেন।পরবর্তীতে পরিকল্পনা মাফিক আয়োজন করেন আর এর পরেই মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিক ভাবে জলপাইগুড়ি শহরের শ্রদ্ধা নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার হাতে অ্যাম্বুল্যান্সের চাবি তুলে দেন তিনি “।বাড়িতে বসে সরকারি মাইনে ভোগ করতে পারবোনা , মাইনের সেই টাকায় অ্যাম্বুলেন্স দান শিক্ষিকার!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

শীর্ষ সংবাদ

- Advertisement -

অন্য রকম