Home আন্তর্জাতিক সীমান্তে উত্তেজনা,লাদাখে আজ ফির ভারত এবং চীনের বৈঠক

সীমান্তে উত্তেজনা,লাদাখে আজ ফির ভারত এবং চীনের বৈঠক

Dainik Khabor :-  ১৯৬২ সালের পরে  এই প্রথম ভারত এবং চীনের মধ্যে। মূল কারণ হলো লাদাখে ভারতের রাস্তা তৈরি করাকে কেন্দ্র করে, কিছু  দিন আগেই ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং লাদাখে  গিয়ে রাস্তার উদ্বোধন করে আসেন। আর ভারতের রাস্তা তৈরী করাকে  কেন্দ্র করেই চীনের মাথা খারাপ হয়ে ওঠে, সেনা দিয়ে এই কাজকে আটকানোর চেষ্টা করে। এবং ভারতীয় সেনা চীনের সেনা কে আটকে দেয়। চীন সেনারা ভারতের অনেকটা  ভেতরে প্রবেশ করে। যাতে ভারত কোনভাবেই সেই রাস্তা তৈরি না করতে পার, সামথিং জানে যে ভারত যদি এই রাস্তা তৈরি করে ফেলে তাহলে তারা চীনের ওপর নজরদারি চালাতে সক্ষম হবে। এর জন্য এই রাস্তা কে আটক করার জন্য প্রথমে একটি উচ্চপর্যায়ের বৈঠক হয়। কিন্তু কোন সুরাহা মিলেনি।

এর পরবর্তী এর পরবর্তী সময়ে দুই দেশের সেনারাই হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে। পরিস্থিতি ভয়াবহ তার দিকে এগোয়। পরিস্থিতি এতটাই ভয়ানক হয় যে ভারতীয় কুড়ি জন সেনা শহীদ হন, আরে দুই দেশের মধ্যে এক ভয়ানক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়, এর পরবর্তী সময়ে এই পরিস্থিতি কে সামাল দেওয়ার জন্য রাশিয়া অনেক চেষ্টা চালায়, কিন্তু দুই শক্তিশালী  পারমাণবিক দেশ এতে তৃতীয় কোন দেশের হস্তক্ষেপে রাজি হয়নি। ফের বসে  দ্বিতীয় পর্যায়ের বৈঠক, এতেও কোনো সুরাহা হয়নি। বরঞ্চ এই বৈঠকের পরে, পরিস্থিতি আরো ভয়ানক হয়ে ওঠে।

ভারত মজুদ করতে থাকে বিভিন্ন যুদ্ধ বিমান, ভীষ্ম T90 এর মতন ট্যাংক। এইদিকে সেনা বাড়াতে থাকে চিন, এইসব পরিস্থিতির মধ্যেও আমেরিকা সেনা পাঠানোর জন্য প্রস্তুত হয়ে উঠে,। আর এর ফলে সৃষ্টি হয় চীনের মধ্যে এক ভয়।

তাই আজকে ফের দুই দেশের উচ্চ পর্যায়ের কমান্ডারদের নিয়ে শুরু হয় বৈঠক। এর আগের দুটি বৈঠক হয়েছিল চিনে, বৈঠক হচ্ছে ভারতের লাদাখের চুশুলে। তবে আজকের বৈঠকে কি আলোচনা হবে সেটিই এখন দেখার বিষয়। আজকের পাঠক এর পর বিদেশে নাকি সেই সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে সরে যাবে, আরো যুদ্ধের পরিস্থিতির দিকে যাবে দুই দেশের সম্পর্ক?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

শীর্ষ সংবাদ

- Advertisement -

অন্য রকম