Home দেশ জোটেনি চাকরি, পেটের দায়ে হাড়িয়া বিক্রি করছেন জাতীয় স্তরে পদকজয়ী

জোটেনি চাকরি, পেটের দায়ে হাড়িয়া বিক্রি করছেন জাতীয় স্তরে পদকজয়ী

বর্তমানে করোনা ভাইরাস এর জেরে ভয়াবহ পরিস্থিতি চলছে সমগ্র পৃথিবীতে। করোনা কে রুখতে দীর্ঘদিন ছিল লক ডাউন। করোনার জেরে সাধারণ মানুষ কাজ হারিয়ে বেকারত্ব এর জীবনযাপন করছেন। অনেক কোম্পানি থেকে ছাটাই করা হয়েছে কর্মী। ফলে অনেক মানুষ আজ কাজ হারা। খাবারের জন্য তারা নানা জায়গায় তারা ঘুরে বেড়াচ্ছেন। খাদ্যের অভাবে আধ পেটা হয়ে জীবন যাপন করছেন।কাজের অভাবে মানুষ যেন দিশেহারা। এই পরিস্থিতিতে সামনে এলো ঝাড়খন্ড এর জাতীয় পদকজয়ী ক্যারাটে খেলোয়াড় এর নাম।

তিনি হলেন বিমলা মুন্ডা। তিনি খেলে রুপো ও সোনা জয় করেছিলেন। ঝাড়খণ্ডের বিমলা মুন্ডা ২০১১ সালে ৩৪ তম জাতীয় গেমসে রাজ্যের হয়ে রুপো জয় করেছিলেন। এছাড়া ২০১২ সালে তিনি অক্ষয় কুমার আয়োজিত আন্তর্জাতিক কুডো চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জয় করেছিলেন। তিনি চাকরি পাওয়ার যোগ্য কিন্তু লক ডাউন এর কারণে তিনি এখন চাকরি জুটিয়ে উঠতে পারেননি। চাকরি অর্জন করার সমস্ত যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও তিনি এখন চাকরি পাননি। সোশ্যাল মিডিয়ায় তার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে দেখা যাচ্ছে বিমলা মুন্ডা হাঁড়িয়া বিক্রি করছেন। সংসারের খরচ মেটাতে তিনি উপার্জন এর জন্য এই পথ বেছে নিয়েছেন। করোনা ভাইরাস এর জেরে বাধ্য হয়ে তাকে তার কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখতে হয়। এর পর সংসার চালানোর জন্য কি করবেন ভাবতে ভাবতে তিনি শেষে নিজের বাড়িতে ভাট পচিয়ে হাঁড়িয়া তৈরী করা শুরু করেন। এবং সেই হাড়িয়া তিনি বিক্রি করেন। তার এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়।

এই ঘটনা চোখে পরে ঝাড়খন্ড সরকার এর। নড়েচড়ে বসেন ঝাড়খন্ড সরকার। ঝাড়খন্ড সরকার ৩৩ জনকে চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। সেই চাকরি প্রার্থীর তালিকায় বিমলা মুন্ডার নাম থাকে। কিন্তু এখন চাকরির চিঠি এখন হাতে আসে নাই ফেব্রুয়ারী মাসে যাবতীয় নথিপত্র এর কাজ শেষ হয়ে যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

শীর্ষ সংবাদ

- Advertisement -

অন্য রকম