fbpx
Friday, July 30, 2021
Homeআন্তর্জাতিককাশ্মীর এবং জুনাগড়কে নিজের দেশের ম্যাপে অন্তর্ভুক্ত করল পাকিস্তান! প্রকাশিত হল নতুন...

কাশ্মীর এবং জুনাগড়কে নিজের দেশের ম্যাপে অন্তর্ভুক্ত করল পাকিস্তান! প্রকাশিত হল নতুন ম্যাপ

অনলাইন ডেস্ক,৫অগাস্টঃ চালবাজ চিন আর তারই ঘনিষ্ট বন্ধু পাকিস্তান। সম্পর্কটা যেনো চোরে চোরে মাসতুতো ভাই।পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তার দেশের নতুন ম্যাপ প্রকাশ করলো যেখানে কাশ্মীরের পুরো অংশকে পাকিস্তান সরকার তাদের দেশের অংশ উল্লেখ করেই নতুন এই বিতর্কিত ম্যাপ প্রকাশ করলো।নতুন এই ম্যাপে শুধু কাশ্মীরই নয়, গুজরাটের জুনাগড় কেউ পাকিস্তান তাদের নতুন ম্যাপে অন্তর্ভুক্ত করেছে।স্বাভাবিক ভাবেই ভারত সরকারের দ্বারা ৩৭০ধারা কাশ্মীর থেকে উঠিয়ে দিতেই, পাকিস্তান খানিকটা চিন্তায় পড়ে যায়, এর পরেই ভারত সরকারের তরফ থেকে অভিযোগ আনা হয় যে, এই নতুন ম্যাপ তৈরিতে পাকিস্তান কোনো রকম আইনি ভিত্তির সাহায্য নেয় নি তাদের এই নতুন ম্যাপ পুরোটাই ভিত্তিহীন বলে দাবি করে ভারত।পাকিস্তানের নতুন ম্যাপ তাদের কুকর্মের একটি নমুনা মাত্র এমনটাই মনে করছেন অনেকে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ক্যাবিনেট বৈঠকের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখী হয়ে বলেন, ‘এই প্রথমবার আমরা ভারতের কাশ্মীরকে আমরা আমাদের ম্যাপে অন্তর্ভুক্ত করেছি এছাড়াও এই নতুন ম্যাপে পাকিস্তানের অন্যান্য রাজনৈতিক দলেরও সায় রয়েছে, তাই আমরা মনে করি পাকিস্তানের ইতিহাসে দিনটি একটি ঐতিহাসিক দিন।’

পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী জানায়,এই প্রথমবার বিশ্বের সামনে পাকিস্তানের অবস্থানকে সঠিক ভাবে তুলে ধরা হয়েছে, এমনটাই দাবি পাক বিদেশমন্ত্রীর এছাড়াও পাক বিদেশমন্ত্রী তাদের দেশের প্রধানমন্ত্রীকে এইরূপ ম্যাপ প্রকাশের জন্যে ধন্যবাদ জানায়।এছাড়াও পাকিস্তানের জন সাধারণের উদ্দেশ্যে অভিনন্দন জানায়।

আরও পড়ুনঃ  অমিত শাহের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ না আসা পর্যন্ত চলবে রোজা!এমনটাই জানালেন কাশ্মীরের গুফতার আহমেদ

পাকিস্তানের এইরূপ বিতর্কিত এবং অবৈধ ম্যাপ প্রকাশের পর ভারতের বিদেশমন্ত্রক সূত্রে জানান হয়,যতসব ভুল স্বপ্ন দেখছে পাকিস্তান, এমনকি রাজনৈতিক ভাবেও এই নতুন ম্যাপ পরোপুরি অবাস্তব একটি চিন্তাধারা যা পাকিস্তানের সরকারের মধ্যে চলছে। ভারত সরকারের তরফ থেকে বলা হয়েছে,আইনি কোনো রকম ভিত্তি ও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি ছাড়াই পাকিস্তান নতুন ম্যাপ প্রকাশ করেছে যা পুরোটাই ভিত্তিহীন।পাকিস্তানের একটাই উদ্দেশ্য কি করে সন্ত্রাস সৃষ্টি করার মাধ্যমে অন্যদেশের ভূমিকে কব্জা করা যায়, আর সেটাই আবারও প্রমান পাওয়া গেলো।

আসলে পাকিস্তানের সরকারের কাছে চিন্তার বিষয় হলো কাশ্মীরে৩৭০ ধারা ভারত সরকার দ্বারা লুপ্তিকরণ সাথেই রাজ্যটিকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করা পর থেকেই পাকিস্তানের কাছে চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এর আগেও ভারতের ৩৭০ধারা লুপ্ত করার পর সেই বিষয় নিয়ে একাধিকবার ইমরান খানের কথায় চিন্তার ভাঁজ পরতে দেখা গিয়েছে, এছাড়াও বিশ্ব ফোরামে গিয়েও জানালে কোনো রকম কাজ হয়নি। তাই হয়তো নিজেদের দেশের জনসাধারণকে সরকারের ওপর আস্থা ও ভরসা বজায় রাখতেই পাকিস্তান সরকারের এটা একটা কারসাজি ছাড়া আর কিছুই নয়।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

শীর্ষ সংবাদ

অন্য রকম