fbpx
Saturday, June 19, 2021
Homeমালদাএকদিকে পুলিশ সুপার অন্যদিকে ডাক্তার! রাজ্যজুড়ে প্রশংসার ঝড়

একদিকে পুলিশ সুপার অন্যদিকে ডাক্তার! রাজ্যজুড়ে প্রশংসার ঝড়

অনলাইন ডেস্ক,৩আগস্টঃ সমাজের জন্যে একজন আসল হিরো যার নাম ডাক্তার হোসেন মেহেদী রহমান। বর্তমানে তিনি একজন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার যিনি মালদা জেলা পুলিশে কর্মরত। নিজের জীবনে একসময় ডাক্তারি পরেছেন। তবে বর্তমানে সমাজের এই আসল হিরো এখন একদিকে করোনা মহামারীতে জেলার আইন শৃঙ্খলার দিকে লক্ষ্য রাখছেন ঠিক তার অপরদিকে করোনা সংক্রমন নিয়ে ভর্তি সহকর্মীদের পাশে থেকে তাদের চিকিৎসা সহ তাদের মনোবল বৃদ্ধিতে লেগে রয়েছেন এই আইপিএস অফিসার। মালদা জেলা পুলিশ এমন একজন আইপিএস অফিসারকে পেয়ে সত্যিই খুব গর্বিত।

হোসেন মেহেদী রহমান তার বাড়ি উত্তরদিনাজপুর জেলায়। জানা গিয়েছে, ২০১২ সালে আলীগড় মুসলিম ইউনিভার্সিটি থেকে এমবিবিএস করেন তিনি এর পরেই ২০১৪ সালে লখনউ থেকে কমিউনিটি মেডিসিনের ওপর এমডি করেন।একদিকে যেমন পরিবারের সদস্যদের ইচ্ছে তাদের ছেলে ডাক্তার হবে ঠিক ওপর দিকে হোসেন মেহেদী রহমানের ইচ্ছে ছিল একদিন পুলিশ অফিসার পদে নিযুক্ত হবার। এর পরেই ২০১৬সালে তিনি আইপিএস হন।এর পরেই আইপিএস ট্রেনিং নিতে দুবছরের জন্যে তিনি হায়দ্রাবাদে থাকেন।

ট্রেনিং শেষ হতেই সর্বপ্রথম ব্যারাকপুরে এসিপি হন, এর পর আলিপুরদুয়ার জেলার এসডিপিও পদে যুক্ত হন আর এর পরেই ২০২০সালের ফেব্রুয়ারী মাসে মালদায় আসেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হেডকোয়াটার হয়ে।তিনি জানান, সমাজের আইন শৃঙ্খলা বজায় রাখার সাথে সাথেই করোনা কালে তার বড়ো দায়িত্ব হলো করোনা আক্রান্তদের সুস্থ করে তোলা।

এই বিষয়ে জেলা পুলিশ সুপার আলোক রাজোরিয়া বলেন, হোসেন মেহেদী রহমানের মতো একজন আইপিএস এবং ডাক্তারকে পেয়ে আমরা খুব খুশি।পুলিশ সূত্রের খবর,এখন পর্যন্ত ২৩০জন পুলিশকর্মীরা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন এবং তাদের নিয়মিত দেখভালের সাথে তাদের চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন হোসেন মেহেদী রহমান। বর্তমানে ১৭০জন পুলিশকর্মী সুস্থ হয়েছেন এবং বাকিদের চিকিৎসা এখনো চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে। সমাজের একজন দায়িত্ববান পুলিশ অফিসার হওয়ার সাথেই চিকিৎসার দ্বারা সহকর্মীদের সুস্থতায় নিজেকে নিয়োজিত করার যে চিন্তা ভাবনা তা সত্যিই প্রশংসনীয় এবং গর্বের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

শীর্ষ সংবাদ

- Advertisement -

অন্য রকম