হাজার বছর আগের ভবিষ্যতবাণী সত্যি হচ্ছে। কাল ইসলাম ছেরে ইন্দোনেশিয়ার রাস্ত্রপতির মেয়ে হিন্দু ধর্মে ফেরত আসছেন

বর্তমান ইন্দোনেশিয়ার মাজাপাহিত সাম্রাজ্যের রাজা পঞ্চম ব্রাউইজায়া ইসলাম ধর্ম গ্রহণের পর, হিন্দু পুরোহিত সবদাপালন তাকে অভিশাপ দিয়েছিলেন এবং বলেছিলেন যে তিনি হিন্দু ধর্মের গৌরব পুনরুদ্ধার করতে ফিরে আসবেন। আবার হিন্দু ধর্ম কে পুনঃপ্রতিষ্ঠা করতে

হাজার বছর আগের ভবিষ্যতবাণী সত্যি হচ্ছে। কাল ইসলাম ছেরে ইন্দোনেশিয়ার রাস্ত্রপতির মেয়ে হিন্দু ধর্মে ফেরত আসছেন

এ বছরের ২৬ শে অক্টোবর ইন্দোনেশিয়ার বালির সিঙ্গারাজা শহরে সুকমাবতী সুকারনোপুত্রী(Sukmawati Sukarnoputri)  আনুষ্ঠানিকভাবে ইসলাম থেকে হিন্দু ধর্মে ধর্মান্তরিত হবেন।

সুকারনোপুত্রী ইন্দোনেশিয়ার প্রতিষ্ঠাতা রাষ্ট্রপতি সুকার্নো এবং তার তৃতীয় স্ত্রী ফাতমাওয়াতির কন্যা।

বর্তমানে, ইন্দোনেশিয়া বিশ্বের বৃহত্তম মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ। এক সময় হিন্দুধর্ম দ্বীপরাষ্ট্রে শক্তিশালী প্রভাব বিস্তার করেছিল। এটি ১ম শতাব্দীর শুরুতে জাভা ও সুমাত্রা দ্বীপে ছড়িয়ে পড়ে এবং ১৫শ শতাব্দী পর্যন্ত সমৃদ্ধ হয়। যাইহোক, ইসলামের আগমনের পরে হিন্দুধর্ম হ্রাস পায়, যা হিন্দুদের দেশে সংখ্যালঘু করে তোলে যা শীঘ্রই মুসলিম অধ্যুষিত হয়ে ওঠে। 

আজ ইন্দোনেশিয়ার হিন্দুরা তাদের পূর্বপুরুষদের ভবিষ্যদ্বাণীতে বিশ্বাস করে চলেছে, বিশেষ করে রাজা জয়বায়া এবং পুরোহিত সাবদাপালন।

হিন্দু পুরোহিত সবদাপালানের ভবিষ্যতবাণী

ইন্দোনেশিয়ার সবচেয়ে শক্তিশালী সাম্রাজ্য মাজাপাহিত সাম্রাজ্যের রাজা পঞ্চম ব্রাউইজায়ার দরবারে সাব্দাপালন ছিলেন একজন মহাবিদ্বান যাজক।

১৪৭৮ সালে যখন রাজ্যটি ইসলামিক প্রভাবে পড়ে এবং পঞ্চম ব্রাউইজায়া ইসলাম গ্রহণ করেন, তখন সবদাপালন রাজাকে অভিশাপ দেন। প্রাকৃতিক দুর্যোগ এবং রাজনৈতিক দুর্নীতির রুপ নিয়ে তিনি আবার ফিরে আসার অঙ্গীকার করেছিলেন।

দ্বীপপুঞ্জকে ইসলামের কবল থেকে মুক্ত করার এবং হিন্দু জাভানিজ ধর্মের গৌরব পুনরুদ্ধার করার ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলেন।

আজ সেই অভিশাপের সফল বাস্তবায়ন হচ্ছে বলে মনে করছে ইন্দোনেশিয়ার হিন্দুরা ।

সুকমাবতী প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি সুকার্নোর তৃতীয় কন্যা তথা ইন্দোনেশিয়ার প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি মেগাবতী সুকার্নোপুত্রির ছোট বোন। ৭০ বছর বয়সী সুকমাবতী ইন্দোনেশিয়াতেই থাকেন। ২০১৮ সালে কট্টরপন্থী ইসলামিক সংগঠন ওনার বিরুদ্ধে ধর্ম অবমাননার অভিযোগ তুলেছিল।

সুকমাবতী সুকার্নোপুত্রি (Sukmawati Sukarnoputri) ইসলাম ধর্ম ছেড়ে হিন্দু ধর্ম আপন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ২৬ অক্টোবর তিনি একটি পুজোয় অংশগ্রহণ করে সনাতনী হিন্দু ধর্মে ফিরে আসবেন। CNN ইন্দোনেশিয়ার রিপোর্টে এই কথা জানা গিয়েছে। মঙ্গলবার সুকার্নো হেরিটেজ এরিয়ায় এই পুজো অনুষ্ঠান হবে।