fbpx
Friday, July 30, 2021
Homeবিনোদনইতিহাসে রেকর্ড গড়ল সুশান্তের শেষ সিনেমা ' দিল বেচারা' ; টপকে দিল...

ইতিহাসে রেকর্ড গড়ল সুশান্তের শেষ সিনেমা ‘ দিল বেচারা’ ; টপকে দিল সালমান সাহরুখ দের

অনলাইন ডেস্ক,২৫জুলাইঃ সুশান্ত সিং রাজপুতের শেষ তথা নতুন ছবি বেচারা কাল মুক্তি পেল ডিজনি প্লাস হটস্টার অর্থাৎ ডিজিটাল প্লাটফর্মে।বলিউডের খ্যাত কাস্টিং ডিরেক্টর মুকেশ ছাবড়াই সুশান্তকে প্রথম হিন্দি সিনেমার জন্য বেছে নিয়েছিলেন। ‘কাই পো চে’ ছবির কাস্টিং ডিরেক্টর ছিলেন তিনি। মুকেশ কে বলিউডে পরিচালক হওয়ার প্রথম ধাপ পাশ করিয়ে দিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত।বিষয়টা খানিকটা ট্রাজেডিক হয়ে যায়, কারণ পরিচালক মুকেশের প্রথম ছবি সুশান্ত সিং রাজপুতের আর শেষ ছবিও। শুক্রবার, ২৪ জুলাই ২০২০-কে ‘দিল বেচারা দিবস’বলা যেতেই পারে। কারণ, সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর তাঁর এই শেষ ছবি দেখার থেকেও বেশি ছিল ছবিটি উদযাপনের।

সুশান্তের সহকর্মী, প্রিয় মানুষ, বন্ধু, পরিবার এবং সর্বোপরি ফ্যানেরা এদিন সকাল থেকে অপেক্ষা করে ছিলেন ‘দিল বেচারা’ দেখার জন্য। ‘দ্য ফল্ট ইন আওয়ার স্টারস’ হলিউড মুভির রিমেক হলো বলিউডের ‘দিল বেচারা’ যাঁরা ‘দ্য ফল্ট ইন আওয়ার স্টারস’ দেখেছেন, তাঁরাও যেন এই ছবিতে নতুন কিছু দেখার আশায় বসেছিলেন। সুশান্ত সিং রাজপুতের অভিনয় ও তাঁকে শেষবার স্ক্রিনে দেখার এক বিষাদময় আনন্দের জন্যই সবার এত উৎসাহ এই সিনেমাটিকে ঘিরে। ভারতীয় সিনেমার ইতিহাসে গড়ে তুলল রেকর্ড সুশান্তের শেষ ছবি। শুক্রবার সন্ধে সাড়ে সাতটায় ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম ডিজনি প্লাস হটস্টারে মুক্তি পেয়েছে সুশান্ত সিং রাজপুত ও সঞ্জনা সাংঘির ছবি ‘দিল বেচারা’। IMDB এই ছবির রেটিং দিয়েছে দশে ৯.৮।বলিউডে বড়ো স্টার শাহরুখ,আমির ও সালমান এর ছবি কখনো পায়নি এতো রেটিং যা আজ সুশান্তের ছবি করে দেখালো।

ট্রেলারের শুরুতেই যেমনটা বলা হয় আর কী। ‘এক ছিল রাজা, এক ছিল রানি। দুইজন মরে গেল, শেষ কাহিনী।’ ছবিটাও ঠিক ততটাই। কিন্তু তারই মাঝে জীবনকে উপভোগ করার পাঠই পড়িয়েছে এই গল্পটি। সুশান্ত সিং রাজপুত, ছবিতে যাঁর নাম ম্যানি,যে কিজি অর্থাৎ সঞ্জনা সাংঘিকে শেখায় কী ভাবে বাঁচতে হয়। ছবিটা দেখতে দেখতে, এই মুহূর্তগুলোতে আপনার মনের মধ্যে দাগ কাটতে বাধ্য।

গল্পে রয়েছে, নায়িকার থাইরয়েড ক্যানসার, তাঁকে সর্বক্ষণ অক্সিজেন সিলিন্ডার বয়ে বেড়াতে হয়। কিজি -র মার চরিত্রে অভিনয়ে কসরেছেন স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় এবং স্বস্তিকার স্বামীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়।

করোনার সংক্রমণের জেরে এই ছবি বড় পর্দায় মুক্তি পেল না। কিন্তু এই ছবি বড় পর্দায় দেখার মতোই ছবি কারণ, ছবিতে বড় মনের এক মানুষকে দেখানো হয়েছে ছোট ছোট জিনিসে কী ভাবে বড় করে বাঁচা যায় তার পাঠ দিয়েছে এই ছবি। ১ ঘণ্টা ৪১ মিনিট ৩০ সেকেন্ড এই ছবির জন্য বড্ড কমই মনে হয়। কিন্তু শেষে রয়েছে একটা অদ্ভুত শূন্যতা যা আপনাকে ভাবিয়ে তোলে। একটা মন খারাপের সুর। যেন সব শেষ হয়ে যাচ্ছে… এমন একটা অনুভূতি। কিন্তু তাও যেন একটা হালকা ভালোলাগা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

শীর্ষ সংবাদ

অন্য রকম