Home রাজ্য হিম্মত থাকলে নন্দীগ্রাম থেকেই লড়ুন মমতা: শুভেন্দু অধিকারী

হিম্মত থাকলে নন্দীগ্রাম থেকেই লড়ুন মমতা: শুভেন্দু অধিকারী

পূর্ব নির্ধারিত অনুসারে নন্দীগ্রামের মমতার সভার পরের দিনেই সভা করার কথা ঘোষণা করেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। মমতার প্রথম সভা বাতিল হয়েছিল। পরে গত সোমবার সভা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

সোমবার নন্দীগ্রামে দাঁড়িয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন যে ভবানীপুরের পাশাপাশি নন্দীগ্রাম কেন্দ্র থেকেও প্রার্থী হবেন তিনি। নন্দীগ্রামকে নিজের মেজো বোন বলেও তুলনা করতে দেখা গিয়েছে মমতাকে। যার পালটা এদিন শুভেন্দু বলেছেন, “দুই কেন্দ্র থেকে লড়াই করতে দেব না। শুধু নন্দীগ্রাম থেকে লড়াই করুন মমতা।”

নন্দীগ্রাম কেন্দ্র থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হার নিশ্চিত বলেও দাবি করেছেন শুভেন্দু। ওই কেন্দ্র থেকে তৃণমূল সুপ্রিমোকে ৫০ হাজার ভোটে হারাবেন বলে দাবি করেছেন তিনি। সেই সঙ্গে আরও বলেছেন, “এখন থেকেই প্রাক্তন বিধায়ক এবং মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে প্যাড তৈরি করে রাখুন।”

তৃণমূলের জন্মের পর ভবানীপুর বিধানসভা কেন্দ্র থেকে দাঁড়াতেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবারে নন্দীগ্রাম এবং ভবানীপুর দু’জায়গা থেকেই দাঁড়াচ্ছেন তিনি। তিনি বলেছেন, ‘নন্দীগ্রামকে বেশি সময় দিতে পারব না। কারণ, ২৯৪ আসনেই আমাকে লড়তে হবে।” তবে ভবানীপুরকেও যে তিনি অবহেলা করবেন না তা তিনি জানিয়ে দিয়েছেন। তৃণমূল সুপ্রিমো বলেন যে ভবানীপুর আমার বড় বোন, নন্দীগ্রাম আমার মেজ বোন। দুটি কেন্দ্র থেকেই দাঁড়াব।”

সোমবারে রাতে বিধানসভা নির্বাচনে মমতার নন্দীগ্রাম থেকে লড়ার বিষয়ে শুভেন্দু টুইট করেন, “স্বাগতম দিদি। ২১ বছর সঙ্গে ছিলাম। এবার‌ নন্দীগ্রামে সামনা-সামনি দেখা হবে”। শুধু বাংলা নয়, পাশাপাশি ইংরেজি ও হিন্দিতেও বার্তা দিয়েছেন শুভেন্দু। হিন্দির ক্ষেত্রে আরও লিখেছেন, “ইন্তেজার রহেগা”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

শীর্ষ সংবাদ

- Advertisement -

অন্য রকম