fbpx
Saturday, July 24, 2021
Homeরাজ্যঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের ভূমিকায় প্রশংসায় পঞ্চমুখ রাজ্যপাল

ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের ভূমিকায় প্রশংসায় পঞ্চমুখ রাজ্যপাল

ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের ভূমিকায় প্রশংসায় পঞ্চমুখ রাজ্যপাল

বর্তমানে চারিদিকে করোনা আবহ এরই মাঝে সকলের কাছে আরও এক চিন্তার বিষয় এসে পড়লো হল ঘূর্ণিঝড় যশ। এই ঝড়ের প্রভাব দেখা যাবে রাজ্যের বেশ কিছু অঞ্চলে। পশ্চিমবঙ্গ এর বেশ কিছু অঞ্চলে ঘূর্ণিঝড় এর পাশাপাশি আগামীকাল হাওড়া , হুগলি , কলকাতা , পুরোলিয়া , নদীয়া , মালদা ও মুর্শিদাবাদ এ ভারি বৃষ্টিপাত এর সম্ভাবনা রয়েছে। কলকাতায় আজ থেকেই বৃষ্টিপাত শুরু হয়ে গিয়েছে। এই সাইক্লোন দীঘার থেকে কিছু কিলোমিটার দূরে রয়েছে। এই ঝড় দুপুরের দিকে বলেশ্বরে আছড়ে পরবে। আবহাওয়া দপ্তরের সূত্রে খবর , আগামীকাল এই ঝড় উত্তর ও উত্তর পশ্চিম দিকে এগোবে। তারপর এই ঝড় বাংলা উড়িষ্যা উপকূল এর কাছে পৌঁছে যাবে। এই ঝড়ের কারণে বেশ কিছু জায়গায় সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

 

 

 

পূর্ব মেদিনীপুর ও পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় লাল সতর্কতা জারি করা হয়েছে। এই ঝড়ের হাত থেকে বাঁচার জন্য সব রকম চেষ্টা করেছেন রাজ্যে সরকার। কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে নবান্নে ও উপন্ন। রাজ্যের প্রশাসন এই দুর্যোগ মোকাবিলায় কোনো রকম খামতি রাখেননি। তারা ইতিমধ্যেই প্রায় ৯ লাখ মানুষকে ত্রাণ শিবিরে নিয়ে গেছেন। রাজ্যে সরকার চেষ্টা চালাচ্ছে রাজ্যের কোনো মানুষের যেন এই ঝড়ে অসুবিধা না হয়। রাজ্যের এই যশ ঘূর্ণিঝড় এর জন্য লড়াই দেখে রাজ্যপাল জগদিশ ধনকর রাজ্যের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলেন।

 

 

তিনি নবান্নে পৌঁছে গেছেন কিভাবে এই ঝড়ের মোকাবিলা কাজ হচ্ছে ও কিভাবে হচ্ছে সেটা দেখার জন্য। আজ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর সাথে তিনি বৈঠক করবেন। এবং তারপর তিনি আবহাওয়া দপ্তরে যান। সেখানে তিনি রাজ্যের যশ মোকাবিলা নিয়ে প্রশংসা করে বলেছেন , ” আমফ্যানের মতো পরিস্থিতি তৈরির হোক সেটা কেউ আমরা চাই না। তাই ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলা কেন্দ্র – রাজ্যে একসঙ্গে যেভাবে কাজ করছে তা সত্যিই প্রশংসা যোগ্য। সব কাজেই এমন ভাবে সমন্বয় রাখা উচিত। “

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

শীর্ষ সংবাদ

অন্য রকম